Windows operating system-এর CD কেনার সময় কিছু সাবধানতা অবলম্বন করুন

Posted: জুলাই 10, 2010 in টিপস এন্ড ট্রিকস
Tags: , , , ,

লিখেছেনঃ emdad

আমরা প্রতিনয়ত আমাদের কম্পিউটার সমস্যা করলে এবং তার সমাধানে কোন পথ খুজে না পেলে অবশেষে নতুন করে Winodws install দিয়ে থাকি। আর এর জন্য ব্যবহার করে থাকি বেশিরভাগ সময় modified CD. আর এই সিডি বেশিরভাগ সময় নেয়া হয় আমাদের কাছের কোন দোকান থেকে যেখানে এর মূল্য ধরা হয় ২৫-৩০ টাকা তাও আবার পাইরেটেড।

আপনাকে এই ২৫-৩০ টাকা দামে সিডিগুলো আপনাকে কি কি সেবা দিয়ে থাকে –

১। কোন সিরিয়াল কি দিতে হয় না, মানে অটো ইন্সটল নেয়।

২। বেশ কিছু থিম

৩। কিছু প্রোগ্রাম যা এক্সপি সেটাপের সময় হয়ে যায়।

৪। Customized CD মালিকের কিছু বিজ্ঞাপন এবং আরো অনেক কিছু।

এখন আসুন দেখি এর বিনিময়ে আপনার কাছ থেকে কি কি সেবা ওরা নিয়ে থাকে –

১। হয়রানি, যখন ঐ সিডি-টি আপনার কম্পিউটার সাপোর্ট করে না।

২। যখন আপনার কোন প্রোগ্রাম কাজ করে না এবং error দেখায় যে File missing. যার কারণে আপনাকে করতে হয় মানসিক চিন্তা

৩। বিরক্তির কিছু প্রোগ্রামের নিজ থেকে চালু হওয়া যখন Winodws login করে, যা ঐ customized cd মালিক আপনাকে ফ্রিতে দিয়ে থাকে CD-র সাথে।

এছাড়া আরো অনেক কিছু আছে যা আপনার কাছ থেকে নিয়ে থাকে।

এখন আমি আমার বিশ্লেষন তুলে ধরছি এর আলোকে –

আপনার হয়ত খেয়াল করেছেন যে, আমরা যখন কোন দোকানে যায় তখন বিভিন্ন ধরনের Windows CD পাওয়া যায় যেমন :- windows xp …….edition, windows XP 2009, windows xp 2010 এমনকি এমন কিছু সিডি বাজারে পাওয়া যায় যা Microsoft corporation-হার মানায় যখন দেখি যে Windows XP 2011 যা Microsoft release করে নি। এইতো গেল CD Edition এর কথা।

এবার আসি এর তৈরি করা নিয়ে

আমরা কম বেশি সবাই জানি যে, কিছু 3rd Party software দিয়ে Windows কে Customized করা যায়। যেমন : N-lite এবং V-lite.

এই সফট দিয়ে আপনি আপনার মতে করে windows cd বানাতে পারেন নিজের ব্যবহারের জন্য। আর এই সফটের সুযোগ নিয়ে বেশ কিছু ছোট লোক তাদের ছোট চিন্তা নিয়ে এইভাবে CD customized করে বাজারে নিয়ে আসে বিভিন্ন নামে এবং এডিশনে। আর বলে বেড়ায় যে এটি আপডেট সিডি। তাছাড়া যখন কোন ঐ সিডি ক্রেতা কোন সমস্যার কারণে ঐ সিডি বিক্রেতার কাছে যায় তখন ঐ বিক্রেতা কোন ধরনের যাছাই না করে সিডি বদলিয়ে দেন। আর উন্নত বিশ্বের দিকে তাকালে দেখা যায়, যখন কোন অভিযোগকারি কোন অভিযোগ নিয়ে আসে তখন ঐ বিক্রেতা ঐ সিডি প্রস্তুতকারকে কাছে এর কারণ জানতে চেয়ে বিশেষজ্ঞের কাছে পাঠিয়ে দেয় এর কারণ খুজে বের করার জন্য।

আর আমাদের দেশে যারা সিডি বিক্রি করে তাদের বেশিরভাগ লোকের কাছে সিডি মানে গোলাকৃতির একটি জিনিস এবং যারা ঐ সিডিটি Customized করে তার কাছে শুধু সিডি রাইট এবং বিক্রি করা বুঝায়। যদি কোন সিডি সমস্যা করে windows install করার পর, তাহলে তা কেন হল তার কারণ খুজে বের করার সময় ঐ লোকের নেয়। যার ফলপ্রসূতে ভোগান্তি হয় ব্যবহারকারিদের।

উদাহরণ :- ধরুন সামপ্রতিক কোন প্রোগ্রাম আসল বাজারে যা কিনা আপডেট কম্পিউটার-এ কাজ করে এর উপযোগি করে এই সফটকে বাজারে ছাড়া হল এবং এর জনপ্রিয়তা অনেক বেশি। এখন কিছু ছোট লোক এর সুবিধা নিয়ে তাদের অতি মুনাফার আশায় তারা ঐ সফটকে windows xp cd-র সাথে slipstream করে বাজারে নিয়ে আসল এবং বলে বেড়াতে শুরু করল নতুন এবং আপডেট windows XP সিডি বাজারে এসেছে। আর এই কথা শুনে একজন সাধারণ পুরোন কম্পিউটার ব্যবহারকারি ঐ সিডি নিয়ে গিয়ে তার কম্পিউটারে ইন্সটল করল। ইন্সটল করার পর দেখল যে তার কম্পিউটার ঠিকমত কাজ করছে না। এবং সে নিজে বুঝে উঠতে পারল না এর কি কারণ। তাই সে ঐ দোকানে গেল এবং বলল, ভাই আপনার এই সিডি-তো আমার কম্পিউটারে কাজ করছে না।ঠিক তখন ঐ দোকানি বলে উঠল কেন ভাই, এই সিডিতো আমি হাজার এর মত বিক্রি করেছি কেউ তো এই কথা বলে নি। ওই সিডি ক্রেতা এবং বিক্রেতাদের  কি সমস্যা, আপনারা বের করে আমাকে জানান

আর এই ভোগান্তি থেকে মুক্তি পেতে আমি আপনাদেরকে বলব যে, আপনার ঐ সকল Customized CD ব্যবহার না করে বাজারে কিছু সিডি পাওয়া যায় যা কোন ধরণের modification করা হয় নি এইগুলো ব্যবহার করুন।

Blog and windows tutorial

আপনাদের কম্পিউটার সমস্যায় আমাকে জানাতে পারেন Computer help forum

Source

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s